fbpx

Blog

Defensive driving technique.

কৌশল বা টেকনিক (Tecnique) শব্দের সাথে সবারই পরিচয় আছে। সবকিছুরই নির্দিষ্ট কিছু কৌশল থাকে। আমরা অনেকেই গাড়ি চালিয়ে থাকি। তবে তা কতটুকু নিরাপদ ড্রাইভিং তা কি কেউ খেয়াল করেছি ? তাই আজ আমরা জানবো নিরাপদ ও আত্মরক্ষা মূলক ড্রাইভিং কৌশল সম্পর্কে।

১। গাড়ির স্টিয়ারিং (Steering) খুব হালকা। এটি যেহেতু হাতে ব্যবহার করতে হয় তাই কখনো জোরের সাথে এটি ঘোরাবার চেষ্টা করা উচিত নয়। অবশ্য যদি কখনো পাশ থেকে বা পেছন থেকে কোন গাড়ি ওভারটেক করতে চায় অথবা কোনো গাড়ি হঠাৎ সামনে এসে পড়ে তাহলে শক্ত হাতে স্টিয়ারিং ধরতে হবে। এরকম না করলে গাড়িকে সেই সময়ে কন্ট্রোল করা যায় না। গাড়ি চালানোর সময় যখন হালকা হাতে স্টিয়ারিং ব্যবহার করবো সাথে সব সময় সামনের দিকে সবকিছু লক্ষ্য করতে হবে। গাড়ি কোন দিকে কতটুকু ঘোরানো প্রয়োজন তা খুবই দ্রুত সময়ের মধ্যে ডিসিশন নিতে হবে। গাড়ি চালানোর সময় কখনোই স্টিয়ারিং এর উপর জোর জবরদস্তি করা ঠিক না।

২। গাড়ির হর্ন, ব্রেক, গিয়ার, স্টিয়ারিং ঠিক থাকতে হবে। তা না হলে গাড়ি বের করে চালানো যাবে না।

৩। রাতের বেলা গাড়ি চালাতে গেলে গাড়ির আলো চেক করে নিতে হবে যে সেটা ঠিকঠাক আছে কিনা।

৪। সূর্য অস্ত যাওয়ার আধঘন্টা পর থেকে ভোর হওয়া পর্যন্ত যদি গাড়িটি রাস্তায় চলে তাহলে অবশ্যই গাড়িতে আলো জ্বালিয়ে রাখতে হবে ।

৫। ধারণ ক্ষমতার অতিরিক্ত পন্য বহন করা উচিৎ নয়।

৬। সবসময় গাড়ি রাস্তার বাম পাশ দিয়ে চালাতে হবে, যদি ওভারটেকিং (Over Taking) এর প্রয়োজন হয় তাহলে সিগন্যাল দিতে হবে। 

৭। রাস্তার যেখানে যতটা স্পিডে গাড়ি চালানোর নির্দেশ আছে সেখানে সেই গতিতেই গাড়ী চালাতে হবে। যেমন বিশেষ কোন রাস্তায় আছে 40 কিলোমিটার পার আওয়ার বেগে গাড়ি চালাতে হবে সুতরাং সেখানে 40 কিলোমিটার বেগেই গাড়ি চালানো উত্তম।

৮। গাড়ি চালাতে হলে দিনের বেলা হাতের সংকেত ও রাতের বেলা আলোর সংকেত সব সময় ঠিকমতো ব্যবহার করতে হবে। তাতে ভুল হলে তা আইন অনুযায়ী দণ্ডনীয় অপরাধ যেমন হবে তেমনি তা মারাত্মক দুর্ঘটনার কারণ হতে পারে।

৯। অযথা রাস্তার মাঝে গাড়ি দাঁড় করিয়ে অন্যের অসুবিধা করা যাবে না।

১০। পথে যদি পুলিশের কোন লোক গাড়ি থামাতে বলেন তাহলে সাথে সাথে গাড়ি থামিয়ে দিয়ে তাকে সহযোগিতা করতে হবে বা কো-অপারেট করতে হবে।

Share on facebook
Facebook
Share on google
Google+
Share on twitter
Twitter
Share on linkedin
LinkedIn
Share on pinterest
Pinterest

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Some Recent Posts

Car

Hybrid Car

বর্তমান বিশ্বে ইলেকট্রিক কার (Electric Car) এর জয়জয় কার চলছে। সম্প্রতি গাড়ি নির্মাতা প্রতিষ্ঠান টেসলা (Tesla) তাদের ইলেকট্রিক কার এর মাধ্যমে দীর্ঘদিন ধরে রাজত্ব করে

Read More »
Brand

Toyota 2TR-FE

2TR-FE এমন একটি ইঞ্জিন যা খুব সফলতার সাথে Toyota  3RZ-FE  এর জায়গা নিতে পেরেছে। TOYOTA যদিও এটাই চেয়েছিল এবং সেভাবেই ইঞ্জিন টিকে প্রস্তুত করেছে। তাই

Read More »
Car

Starting Motor

গাড়ি স্টার্ট করতে গেলে ইঞ্জিনের ফ্লাইহুইল টিকে ঘুরাতে হবে। এত বড় এই ফ্লাইহুইল থেকে ঘোরানোর জন্যই ব্যবহার করা হয় স্টার্টিং মোটর (Starting Motor)। তাই আজ

Read More »